প্রাথমিক সহকারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষার চূড়ান্ত সাজেন




আজকে আমরা প্রাইমারির চূড়ান্ত নিয়োগ প্রস্তুতি সিলেবাস ও সাজশেন নিয়ে কথা বলব, তো চলুন শুরু করা যাক।

গরীবের বিসিএস হিসেবে খ্যাত সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষার ১ম ধাপের নিয়োগের সার্কুলার (রংপুর, বরিশাল,সিলেট বিভাগ ) প্রকাশিত হয় গত ২৭ ফেব্রুয়ারি,

 ২০২৩ তারিখে যার অনলাইন আবেদন ইতোমধ্যেই শেষ হয়েছে। ২য় ধাপের নিয়োগের সার্কুলার (রাজশাহী, খুলনা,ময়মনসিংহ বিভাগ) প্রকাশিত হয় গত ২০ মার্চ, ২০২৩ তারিখে। এরপর ৩০ মার্চ থেকে অনলাইন আবেদন শুরু হয়ে ১৪ এপ্রিল,২০২৩ এটার আবেদনের মেয়াদও শেষ হয়।  

     

 বিভাগভিত্তিক সার্কুলার প্রকাশের মূল লক্ষ্যই হলো তাড়াতাড়ি নিয়োগ কার্যক্রম শেষ করা।
আরো একটা কারণ কোটার বিষয়ে যেনো আন্দলন না করতে পারে তার সমাধান হিসেবে এই কৌশল করে সার্কুলার প্রকাশ করা হেয়েছে।

প্রাইমারির চাকরির প্রস্তুতি নিয়ে অনেকেই রিকুয়েস্ট করেছেন কিছু লেখার জন্য, তাই সময় করে আজকে বসে গেলাম...

যারা আবেদন করছেন বা করবেন তারা লিখিত পরীক্ষার প্রস্তুতি নেওয়ার জন্য ২/৩ মাসের বেশি সময় পাবেন না। 
আরো কমও পেতে পারেন। যাদের প্রস্তুতি এখন বেটার লেভেলে আছে তাদের প্রস্তুতিকে বেস্ট লেভেলে নিতে এবং যাদের প্রস্তুতি জিরো লেভেলে আছে তারাও যাতে হিরো হওয়ার প্রস্তুতি নিয়ে এক্সাম হলে যেতে পারেন তাদের জন্য আমার এই ক্ষুদ্র প্রয়াস। আপনার প্রস্তুতিকে আরো শাণিত, পরিপূর্ণ ও ফলপ্রসূ করতে টোটাল এক্সাম স্ট্রাটেজি নিয়ে সিরিজ আকারে কিছু লেখা থাকবে আমার পক্ষ থেকে।

 যদি কেউ বেনিফিটেড হোন তাহলে লেখার শ্রম সার্থক হবে, প্রায় আট বছর ধরে আমি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সহকারী শিক্ষক হিসেবে কর্মরত আছি।

 ২০১৪ সালে আমি যখন অনার্স পাশ করি তখন দুটি সার্কুলার একসাথে পেয়েছিলাম। দুটোর মধ্যে একটির পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়েছিলো ২০১৫ সালে এবং অপরটির ২০১৮ সালে।
 দুটি এক্সামেই অংশগ্রহণ করে দুবারই কোনো ধরণের কোটা ছাড়াই ঈশ্বরের অনুগ্রহে চাকরি পেয়েছি।

 প্রাথমিকে দু'বার এক্সাম দেওয়ার অভিজ্ঞতা,৩৫ তম বিসিএস থেকে ৪১ তম বিসিএস পর্যন্ত মোট ৬টি প্রিলি দিয়ে সবগুলোতেই পাশ করার অভিজ্ঞতা এবং পিএসসি নন-ক্যাডার ও ব্যাংকের অসংখ্য প্রিলি পাশের অভিজ্ঞতা এবং দীর্ঘদিনের কোয়েসচেন অ্যানালাইসিসের অভিজ্ঞতার আলোকে এক্সাম স্ট্র্যাটেজি নিয়েই আমার এই সিরিজ লেখাটি। 

 আমি স্বপ্ন সারথি বন্ধু আপনাকে অভয় দিচ্ছি যদি আপনি আমার এই এক্সাম স্ট্র্যাটেজি ফলো করেন তাহলে" ইউ শ্যাল উইন।

আগামীকাল (২৮ এপ্রিল) থেকে আপনার করণীয় :
 এই কটা মাস আপনি একাই থাকবেন ওখানে।কাউকে চেনেন না,জানেন না, প্রয়োজনও নেই। আপনি শুধু জানেন আপনাকে চাকরি পেতে হবে তাই বই পড়তে হবে। পড়ার রাজ্যই হবে আপনার পৃথিবী। পড়া ছাড়া কারো সাথে কোনো রকম সময় কাটানোর সময়  নেই।

পড়াশোনা করা শুরু করলে অনেকই আপনাকে নিয়ে সমালোচনা করতে পারে বা কু বুদ্ধি দিতে পারে য েপড়াশোনা করে চাকরি হবে না, টাকা ছাড়া  চাকরি হয় না, যা আপনার মন নষ্ট করে দেবে।
শুধু মনে রাখুন কিছু মানুষ পড়বে না আবার অন্যজনের পড়াশোনা নিয়ে কথা বলবে।

শুধু বলব আশে পাশে অনেক মানুষের টাকা ছাড়া চাকরি হয়েছে তাদের দিগে তাকিয়ে চোখ বুঝে পড়াশোনা করুন। ৩ মাস না ঘুমিয়ে সারাজীবন ঘুমিয়ে খাওয়ার ব্যস্তা করুন, সমাজে সুন্দন ভাবে বাঁচার মতো অবস্থা তৈরি করার জন্য  সুযোগটা কাজে লাগান এর বাইরে বলার ভাষা আমার জানা নেই।

 শুধু খাওয়ার সময় কিছু লোকজনকে আপনি চিনবেন (মা,বাবা,ভাই, বোন,স্বামী, স্ত্রী,রুমমেট.........  পড়ার টেবিল গোছাবেন । 
যে সকল বই প্রয়োজন ক্রয় করবেন। নতুন খাতা,কলম,পেন্সিল, ইরেজার হাইলাইটার কিনবেন। সমস্ত মনোযোগ একসুতায় গেঁথে বই পড়বেন।তাহলে একবার পড়লেই সবকিছু মনে থাকবে।
 প্রতিদিন কমপক্ষে ১২-১৩ ঘন্টা বই পড়বেন।

রাতে ৬-৭ ঘন্টা ঘুমাবেন ।ঘুম ঘুম লাগলে বিকালে একঘন্টা ঘুমাবেন।




  👉প্রতিদিন ১ টি সিদ্ধ ডিম,একটি কলা এবং এক গ্লাস দুধ খাবেন। খেজুর খেতে পারেন। কিচমিচ খেতে পারেন।
 👉মৌসুমি ফল খাবেন। 
 👉ভাতের সাথে সবজি,ডাল ও মাছ খাবেন।মাংস কম খাবেন ।খেলে চিকেন খাবেন।
 👉প্রচুর পানি পান করবেন।
 👉বই পড়লে প্রচুর খুদা লাগবে তাই বার বার খাবেন।
 👉দিনে ১০-১৫ বার প্রাণায়াম করবেন।


 
 

প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষার সিলেবাস





সর্বশেষ নিয়োগ পরীক্ষার কোয়েসচেন অ্যানালাইসিস করে দেখা গেছে কোয়েসচেন প্যাটার্ন আগের স্টাইলেই আছে কিন্তু আবেদন যোগ্যতা বাড়ানোর পরেই প্রশ্ন অনেকটাই কঠিন হয়েছে তাই  প্রস্তুতি আরো সতর্ক হয়ে নিতে হবে।
 ভয় পাওয়ার বা উদ্বিগ্ন হওয়ার কোনো অবকাশ নেই।

বাংলা: ব্যাকরণে জোর দিন
(১৫+ থাকবে আশা করা যায়)। মোস্ট_ইমপোটেন্ট:
 ১.কারক
 ২.সমাস 
 ৩.সন্ধি
 ৪.প্রকৃতি ও প্রত্যয়
 ৫.বানান 
 ৬.বাক্য শুদ্ধি 
 ৭.শব্দের উৎপত্তিগত ও অর্থগত শ্রেণিবিভাগ 
 ৮.সমার্থক শব্দ 
 ৯.বিপরীত শব্দ 
 ১০.বাগধারা #ডোন্ট_নেগলেক্ট: 
 ১.ভাষা সম্পর্কিত প্রশ্ন ২.পদ(বিশেষণ,সর্বনাম, অব্যয়,ক্রিয়া,দ্বিরুক্ত,পদিশ্রিত)
 ৩.এককথায় প্রকাশ
 ৪.বচন 
 ৫.লিঙ্গ
 ৬.পারিভাষিক শব্দ
 ৭.বাক্যান্তর সাহিত্য (কম আসবে) 
 ১.রবীন্দ্রনাথ, নজরুল, বঙ্কিম, শরৎচন্দ্র,মাইকেল, ফররুখ, শামসুর রাহমান,জসীম উদদীন, বেগম রোকেয়া, পঞ্চপান্ডব+,কিছু বিখ্যাত বইয়ের লেখকদের নাম পড়বেন। 
 ২.বিখ্যাত পঙক্তি, নীতিকথামূলক পঙক্তি, মরমী শিল্পীদের বিখ্যাত কিছু গান।(কোনো বই থেকে চ্যাপ্টারগুলো পড়ে নিলে ভালো হবে। #কোথা_থেকে_পড়বেন: ১.যেকোন বই থেকে কনসেপ্ট ক্লিয়ার হয় সেভাবে রিডিং পড়বেন।তারপর বিগত প্রশ্নের সমাধান পড়বেন আর পেন্সিল দিয়ে উত্তরটি দাগাবেন।তাহলে রিভাইজ দেওয়ার সময় টাইম কম লাগবে। ২.শীকর প্রশ্নপাঠ পড়বেন সবার আগে। এরপর শীকর ব্যকরণ ও সাহিত্য,অগ্রদূত,এমপিথ্রি থেকে পড়তে পারেন।

 English:     Most Crucial Grammar: 
 Part A
1.Parts of Speech and Identification of Parts of speech
 2.Articles and Determinars
 3.Subject Verb Agreement and Right Form of Verbs 
 4.Conditional Sentences 
 5.Voice Change
 6.Narration and Transformation 
 7.Correction 
 8.Preposition 
 9.Tense and Sequence of Tense 
 10.Degree 


 💥You Have to Memorise: Part B
  1.Number and Gender
 2.Phrases and Idioms 
 3.Synonyms and antonyms 
 4.Spellings
 5.Translation 6.Group Verbs 
 7.Meanings of Phrases
 8.Phrases and Clauses
 9.Transformation of Sentences 
 10.Proverb
 11.Verb (Kinds of Verb,Gerund, Participle,Verbal Noun)
 12.Interchange of Parts of Speech 
 13.Position of Parts of Speech 💥Literature(Less Imporrant) Part C 1.Literary terms 2.Name of some books of famous writers 3.Some quotations #Reference_Books: For part A you can go through Master Guide by stepping topicwise by following these guidelines. For part B and C you should memorise previous questions of job exams



ম্যাথমেটিক্স:
 ১.সংখ্যা (অঙ্ক,সংখ্যা, মৌলিক সংখ্যা, সহমৌলিক সংখ্যা, মূলদ,অমূলদ সংখ্যা, বর্গমূল, ঘনমূল)
 ২.মান নির্ণয় ও উৎপাদক 
 ৩.ধারা ৪.সূচক ও লগ ৫.ভগ্নাংশ
 ৬.শতকরা 
 ৭.ঐকিক নিয়ম 
 ৮.লসাগু ও গসাগু 
 ৯.পরিমাপ,ত্রিভুজ, চতুর্ভুজ, বৃত্ত, ত্রিকোনমিতি, কোণ,বাহু,রেখা,রশ্মি।
 ১০.লাভ-ক্ষতি ও সুদকষা 
 ১১.অনুপাত-সমানুপাত
 ১২.গড়,মধ্যক,সেট,অসমতা,বিন্যাস #কোথা_থেকে_পড়বেন: বই: ককটেল ম্যাথ পড়বেন।
খায়রুলস বেসিক ম্যাথ বা শাহীন'স ম্যাথও ভালো। 


ভ্যকসিন ফর_জিকে 
সাধারণ জ্ঞান জন্য বেশি সময় নষ্ট করার দরকার নেই। কমনগুলো সবাই আনসার করতে পারবেন।তবে যারা ভালো প্রস্তুতি নিতে চান এবং #বিসিএস ও #প্রাইমারি প্রস্তুতি একসাথে নিতে চান তারা নাইম স্যারের Basic View বইটা পড়বেন। #ভ্যাকসিন_ফর_ডেলি_সাইন্স: কনফিডেন্স রিসার্চ ওয়ার্কের নায়েব আলী স্যারের লেখা বিজ্ঞান(প্রিলি) বইটা পড়বেন। #highlights ১.আপনি জব সলুশান থেকে বিগত পাঁচ বছরের পিএসসি’র কোয়েসচেন, ৩৫-৪৪ এর প্রিলি কোয়েসচেন,পিএসসির কোয়েসচেন এবং বিগত ২০১৪,২০১৭,২০১৮, ২০২২(পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হওয়ার সাল) সালের প্রাইমারি কোয়েসচেন পড়বেন। ২.বঙ্গবন্ধু ও তার লেখা বই, মুক্তিযুদ্ধ,সংবিধান,চলমান মেগা প্রজেক্ট,এসডিজি, বাজেট,অর্থনৈতিক সমীক্ষা,জনশুমারি, অর্থনৈতিক অঞ্চল, বাংলাদেশ সরকারের বিভিন্ন অর্জন, সফলতা,জাতীয় বিষয়সমূহ,ইতিহাস, ঐতিহ্য, সংস্কৃতি এবং রিসেন্ট ইস্যু পড়া যেতে পারে। #প্রাইমারি_গাইড মার্চ ফরওয়ার্ডের প্রাইমারি গাইড। #জব_সলুশান: বই:প্রফেসর'স রিসেন্ট জব সলুশান #২০_দিনের_করণীয়: ১.২৯ই এপ্রিল থেকে ২ই মে শীকর প্রশ্নপাঠ বইটি রিডিং পড়বেন।শীকর বাংলা প্রশ্নপাঠ বইটি ব্যাখ্যাসহ পড়তে হবে।এছাড়াও শীকর ব্যকরণ ও সাহিত্যপাঠ,অগ্রদূত, এমপিথ্রি পড়তে পারেন।৪ দিন শুধু বাংলাই পড়বেন। ২.৩-৬ই মে উপরে উল্লিখিত টপিকগুলো মাস্টার ইংরেজি গাইড থেকে শুধু রিডিং পড়বেন।হ্যঁা,শুধু রিডিং পড়বেন। ৩.৭-১০ই মে সাধারণ জ্ঞানের জন্য ব্যাসিক ভিউ বইটা পড়বেন। ৪.১১-১৪ই মে আপনি উপরে উল্লিখিত ম্যাথের টপকগুলো ককটেল ম্যাথ গাইড থেকে বার বার চোখ বুলাবেন।তারপর না দেখে খাতায় প্রাকটিস করবেন। ৫.১৫-১৮ই মে।কনফিডেন্স রিসার্চ ওয়ার্কের বিজ্ঞান বইটি পড়বেন। ০৬.১৯-২৩ই মে সবগুলো বই রিভাইজ দেবেন। ০৭.২৪-২৭ই মে প্রফেসর'স রিসেন্ট জব সলুশান পড়বেন। ০৮.২৮-৩১ই মে আপনি মার্চ ফরওয়ার্ড এর প্রাইমারি গাইডটির প্রশ্ন সমাধান করবেন। ....






কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

tnx for commet..

গুরুত্বপূর্ণ পোস্ট দেখুন

( সিভিল সার্জনের কার্যালয়) স্বাস্থ্যসহকারী পদের প্রশ্ন সমাধান

             স্বাস্থ্যসহকারী পদের প্রশ্ন সমাধান           ৩য় ও ৪র্থ শ্রেণির কর্মচারীর নিয়োগ পরীক্ষা                  পদঃ স্বাস্থ্যসহকারী...

সবচেয়ে চাহিদার পোস্ট গুলো